পদ্মা সেতুতে মাথা লাগার গুজব ছড়ানোয় যুবক আটক

0
169
পদ্মা সেতু

পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে- সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এমন গুজব ছড়ানোর অভিযোগে নড়াইলের লোহাগড়া থেকে এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাব।

পরে আটক শহিদুল ইসলামকে (২৫) লোহাগড়া থানায় সোপর্দ করা হয়। এ ঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আটক যুবককে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে প্রেস ব্রিফিংয়ের মাধ্যমে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন লোহাগড়া থানার ওসি মো. মোকাররম হোসেন।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতু নির্মাণ নিয়ে ফেসবুকে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে র‌্যাব-৬ এর একটি দল অভিযান চালিয়ে শহিদুল ইসলামকে উপজেলার মাকড়াইল গ্রামের দক্ষিণ পাড়ার নিজ বাড়ি থেকে আটক করে। আটক শহিদুল ওই গ্রামের খসরুজ্জামান মোল্যার ছেলে। যশোর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট থেকে কম্পিউটার বিষয়ে পাশ করে যশোরে ইমপেরিয়াল কম্পিউটার ল্যাবে চাকরি করে আসছিল শহিদুল। সে বেশ কয়েকদিন ধরে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পদ্মা সেতু নির্মাণে মানুষের মাথা ও রক্ত লাগবে এবং সেতুতে ৪ জনের মাথা এবং রক্ত নেয়া হয়েছে- মর্মে গুজব ছড়ায়।

এ ঘটনায় র‌্যাব-৬ এর এসআই হাফিজুর রহমান বাদী হয়ে শুক্রবার লোহাগড়া থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। শহিদুলকে দুপুরেই আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে বলে জানান ওসি।